১৩ বছরের কম বয়সী মেয়েকে ধর্ষণ করলেই ধর্ষককে নপুংসক ইনজেকশন

মানব সভ্যতার এক ঘৃণ্য অপরাধ ধর্ষণ। প্রায় প্রতিদিনিই আমাদের দেশে এ জাতীয় একাধিক অপরাধ হচ্ছে। আর আইনের ফাঁক ফোকড় দিয়ে পার পেয়ে যাচ্ছে অপরাধীরা। এছাড়া উপযুক্ত আইনের অভাবেও যথাযথ বিচার পাচ্ছেন না নির্যাতীতা মেয়েরা।

অথচ পৃথিবী জুড়ে ধর্ষণের অপরাধীদের শাস্তির নানান নিদর্শন রয়েছে ৷ পাথর দিয়ে মেরে মাথা ফাটানো, বিষপান করানো, যৌনাঙ্গ কেটে দেওয়া, ফাঁসিতে ঝোলানো, বিভিন্ন রাসায়নিক পদার্থ দিয়ে মেরে ফেলা ইত্যাদি ৷

যুক্তরাষ্ট্রের আলাবামা অঙ্গরাজ্যে শিশু ধর্ষণ রুখতে সম্প্রতি নতুন এক আইন পাস করেছে। এই আইন অনুযায়ী, ১৩ বছরের কম বয়সী কোনো মেয়েকে ধর্ষণ করলে ধর্ষককে ইনজেকশন দিয়ে বা ওষুধের মাধ্যমে নপুংসক করে দেওয়া হবে।

জানা গেছে, শিশুদের ধর্ষণের হাত থেকে বাঁচাতে এই আইন করা হয়েছে। এই ইনজেকশন একবার পুশ করলে ধর্ষক দ্বিতীয়বার কারো সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন করতে পারবে না ৷ তাকে সারাজীবন ধরে বয়ে বেড়াতে হবে এই পাপের শাস্তি।

ওই আইন অনুযায়ী, কোনো অপরাধী যদি জেলে থাকেন তবে তাকে তখন ইনজেকশন দেয়া হবে না। তবে প্যারোলে ছাড়া পাওয়ার পর তার শরীরে এটি পুশ করা হবে। কোনো কারণে তিনি যদি ইনজেকশন নিতে রাজি না হন, তাহলে আজীবন তাকে জেলেই থাকতে হবে ৷ কখনইও বাইরে আসতে পারবেন না।

Check Also

ভারতে কোভিড হাসপাতালে অগ্নিকাণ্ড: নিহত ৫

ঢাকাঃ ভারতে একটি কোভিড হাসপাতালে আগুন লেগে ৫ রোগীর মৃত্যু হয়েছে। দগ্ধ হয়েছেন আরও অনেকেই। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *