স্ত্রীকে সাবেক প্রেমিকের হাতে তুলে দিলেন স্বামী!

স্ত্রীর বিয়ে দিয়ে কাঁদলেন- স্ত্রীকে প্রাণ দিয়ে ভালোবেসেছিলেন স্বামী। কিন্তু স্ত্রী ডুবেছিলেন পুরনো প্রেমিকের প্রেমে। বিয়ের চার বছর পরে সেই প্রেমিকের টানে ঘর ছাড়তেই সব কিছু স্পষ্ট হয় স্বামীর কাছে। তাতে অবশ্য রাগে মারমুখী হয়ে ওঠেননি। বরং মর্যাদা দিতে চেয়েছেন স্ত্রীর ভালোবাসাকে।

ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের নদিয়ার নবদ্বীপের মাজদিয়া মাঠপাড়ায়।

স্ত্রীকে খুব ভালোবাসতেন স্বামী। কিন্তু অনেকদিন ধরেই লক্ষ্য করছিলেন কেমন বদলে গেছেন তার স্ত্রী। বুঝতে পারলেন স্ত্রী গোপনে তার সাবেক প্রেমিকের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছে। বিয়ের চার বছর পরে সেই সাবেক প্রেমিকের সঙ্গে ঘর ছাড়তেই সব কিছু স্পষ্ট হয়ে যায়। এতে অবশ্য মারমুখী আচরণ না করে বরং স্ত্রী মিঠু দাসের ভালোবাসার মর্যাদা দিয়েছেন স্বামী সজল দাস।

নিজেই স্ত্রীকে ডিভোর্স দিয়েছেন ২৮ বছর বয়সী ওই ব্যক্তি। এমনকি সবাইকে চমকে দিয়ে নিজ উদ্যোগে প্রেমিকের সঙ্গে স্ত্রীর রেজিস্ট্রি করিয়েছেন। এমনকি বিয়ের রেজিস্ট্রির টাকা এবং রেজিস্ট্রি শেষ হওয়া পর্যন্ত সেখানে উপস্থিত থেকে সবকিছু পরিচালনা করেছেন সজল নিজেই।

সব কাজ শেষ করে যখন শূন্য হাতে ঘরে ফিরলেন তখন পুরনো ছবি আর স্মৃতি ছাড়া আর কিছুই ছিল না তার। পুরনো এসব স্মৃতি মনে পড়ে যাওয়ায় কেঁদে ফেলেন শিশুর মতো। কাঁদতে কাঁদতেই বলেন, ভালোবাসা মানে তো কাউকে জোর করে ধরে রাখা নয় বরং সে যেন ভালো থাকে সেটা করতে দেওয়া। জোর করে তো আর ভালোবাসা পাওয়া যায় না। তাই ওকে আটকে রাখিনি। ও যাকে ভালবাসে তার কাছে ভাল থাকুক।

সজল বলেন, মিঠু আসলে আমাকে কোনদিন ভালোবাসেনি। চার বছর ধরে শুধু অভিনয় করেছে। এবার অত্যন্ত সত্যিকার ভাবে কাউকে ভালোবেসে সংসার করুক।

Check Also

ভারতে কোভিড হাসপাতালে অগ্নিকাণ্ড: নিহত ৫

ঢাকাঃ ভারতে একটি কোভিড হাসপাতালে আগুন লেগে ৫ রোগীর মৃত্যু হয়েছে। দগ্ধ হয়েছেন আরও অনেকেই। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *