সেলিম আল দীন

সেলিম আল দীন

➡️তিনি বাংলাদেশের একজন বিখ্যাত নাট্যকার।

➡️বাংলাদেশে নতুন ধারার নাটকের পথিকৃৎ বলা হয়- সেলিম আল দীনকে।

📒তাঁর রচিত বিখ্যাত নাটকসমূহ:
➡️জন্ডিস ও বিবিধ বেলুন,
➡️চাকা,
➡️যৈবতী কন্যার মন,
➡️কিত্তনখােলা,
➡️মুনতাসীর ফ্যান্টাসী,
➡️কেরামত মঙ্গল,
➡️হাত হদাই,
➡️সাত সাওদা,
➡️পুত্র,
➡️দিনলিপি,
➡️চর কাকড়ার ডকুমেন্টারি।

📒জন্ম
১৯৪৯ সালের ১৮ আগস্ট ফেনি জেলার সোনাগাজী উপজেলার সেনেরখিল গ্রামে।

📒কাব্যগ্রন্থ
কবি ও তিমি (১৯৯০),

📒উপন্যাস-অমৃত উপাখ্যান (২০০৫)। তাঁর রচিত সব সৃজনকর্ম নিয়ে ৫খন্ডে প্রকাশিত হয়েছে সেলিম আল দীন রচনাসমগ্র।

📒নাটক ও নাট্যগ্রন্থ
সর্প বিষয়ক গল্প ও অন্যান্য নাটক (১৯৭৩),
জন্ডিস ও বিবিধ বেলুন (১৯৭৫),
বাসন (১৯৮৫),
প্রাচ্য (১৯৯৮),
কেরামতমঙ্গল (১৯৮৮),
কিত্তনখোলা (১৯৮৯),
হাতহদাই (১৯৯৭),
যৈবতী কন্যার মন (১৯৯৩),
চাকা (১৯৯১),
হরগজ (১৯৯২),
একটি মারমা রূপকথা (১৯৯৫),
বনপাংশুল (১৯৯৬),
নিমজ্জন (২০০২),
ধাবমান, স্বর্ণবোয়াল (২০০৭),
ঊষা উৎসব ও স্বপ্নরমণীগণ (নৃত্যনাট্য, ২০০৭),
পুত্র (২০০৮)

➡️তিনটি মঞ্চ নাটক: মুনতাসির,
শকুন্তলা ও
কিত্তনখোলা (১৯৮৬),

📒পুরস্কার হলো-
👉বাংলা একাডেমী সাহিত্য পুরস্কার (১৯৮৪),
জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার (১৯৯৬),
নান্দীকার পুরস্কার (আকাদেমি মঞ্চ কলকাতা ১৯৯৪),
শ্রেষ্ঠ টেলিভিশন নাট্যকার (টেনাশিনাস পুরস্কার) (১৯৯৪),
খালেকদাদ সাহিত্য পুরস্কার, জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার (একাত্তরের যীশু, শ্রেষ্ঠ সংলাপ) (১৯৯৪),
👉একুশে পদক (২০০৭),
অলক্ত সাহিত্য পুরস্কার (২০০৭) ইত্যাদি।

📒মৃত্যুঃ
২০০৮ সালের ১৪ জানুয়ারি তাঁর মৃত্যু হয়।

➡️সংকলন-মোস্তাফিজার মোস্তাক 

Check Also

বাংলা সাহিত্যের বিখ্যাত উক্তি ও প্রবক্তা

বাংলা সাহিত্যের বিখ্যাত উক্তি ও প্রবক্তা 📒রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ১। ‘আজি হতে শত বর্ষে পরে কে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *