সাইকেল চালিয়ে পবিত্র হজে যাচ্ছেন ৮ মুসলিম

সাইকেল চালিয়ে হজযাত্রায় বেরিয়েছেন ৮ মুসলিম। তারা লন্ডন থেকে যাত্রা করে শনিবার (১৩ জুলাই) ইস্তাম্বুলে যাত্রাবিরতি দিয়েছেন। ব্রিটিশ এ গ্রুপটি যাত্রা শুরু করে ৭ জুন। এ যাত্রায় ১৭টি দেশ অতিক্রম করবেন তারা। তবে তারা সিরিয়া ও ইরাক বিমানে পাড়ি দিয়ে মিসরে পৌঁছাবেন।

পবিত্র ইবাদত হজ পালন, আর মক্কা-মদিনার দর্শন লাভের আকাঙ্ক্ষাই তাদের অদম্য করে তুলেছে কঠিন এই মিশনের পথে। অন্যদিকে প্রায় একই সাথে ইউরোপের দেশ মেসিডোনিয়ার দুই যুবক সাইকেলে চড়ে হজ পালনের উদ্দেশ্যে রওয়ানা দিয়েছেন। সাড়ে তিন হাজার কিলোমিটার পথ সাইকেলে পাড়ি দিয়ে এই দুই বন্ধু পালন করবেন এবারের হজ।

সৌদিতে পৌঁছে তারা প্রথমে মদিনা যাবেন। মদিনা অভিমুখী এই যাত্রায় বিশ্বব্যাপী মুসলমানদের বিবিধ সমস্যা নিয়ে তারা বিভিন্ন স্থানে জনসাধারণের মাঝে সচেতনতা তৈরির কাজ করছেন। দরিদ্র মুসলমানদের সাহায্য এবং মসজিদ ও শিক্ষাঙ্গন নির্মাণের জন্য বিভিন্ন রকমের তহবিলও সংগ্রহ করছেন।

দলের সদস্য জুনায়েদ আফজাল এক সাক্ষাৎকারে সংবাদ সংস্থা ইস্তাম্বুলকে ‘সভ্যতা ও ইতিহাসের দোলনা’ হিসেবে আখ্যায়িত করেন। ইস্তাম্বুলে পৌঁছতে পেরে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেন। উচ্ছ্বসিত জুনায়েদ বলেন, ৭ই জুন লন্ডন থেকে আমরা নিজেদের বাইসাইকেলে যাত্রা শুরু করি। ৪ হাজার কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে ৬০ দিনের ভেতর আমরা মদিনায় পৌঁছার পরিকল্পনা করছি।

নিজের প্রথম হজযাত্রা সম্পর্কে দলটির সদস্য জাইন লাম্বাত বলেন, বিভিন্ন কারণে এই যাত্রা গুরুত্বপূর্ণ। আমরা আমাদের ঈমান ও বিশ্বাসের পথে বেরিয়েছি। যাত্রাপথে বিভিন্ন মহান মানুষদের সঙ্গে আমাদের দেখা হয়েছে। আমাদের অনেক চমৎকার কিছু গল্প রয়েছে। দারুণ কিছু সময় কাটিয়েছি, সারাটা যাত্রাপথ আমাদের ভালোবাসায় আকীর্ণ ছিল। গন্তব্যে যেতে আমাদের জন্য এটি অসাধারণ সময় ছিল।

জাইন বলেন, যদি সত্যিকার অর্থে ও মনে-প্রাণে আপনি হজ করার ইচ্ছে করেন, তাহলে আল্লাহ আপনার জন্য পথ সহজ করে দেবেন।

গত বছর ইন্দোনেশিয়ার মুসলমানদের পাঁচ সদস্যের এক পরিবার বাইসাইকেল চালিয়ে মক্কার উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়েছেন হজ পালনের জন্য।

২০১৭ সালে ইন্দোনেশিয়ান এক যুবক হজ পালন করতে ৯ হাজার কিলোমিটারেরও বেশি হাঁটে মক্কায় পৌঁছে।

Check Also

ভারতে কোভিড হাসপাতালে অগ্নিকাণ্ড: নিহত ৫

ঢাকাঃ ভারতে একটি কোভিড হাসপাতালে আগুন লেগে ৫ রোগীর মৃত্যু হয়েছে। দগ্ধ হয়েছেন আরও অনেকেই। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *