‘শোষণমুক্ত সমাজের স্বপ্ন দেখেছিল সুজাউদ্দিন বাদল’

বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দলের সাধারণ সম্পাদক কমরেড খালেকুজ্জামান বলেন, মুক্তিযুদ্ধের বাংলাদেশ তথা শোষণমুক্ত সাম্যেও সমাজের স্বপ্ন দেখেছিলেন সুজাউদ্দিন বাদল। কমরেড সুজাউদ্দিন বাদল আশির দশকের প্রারম্ভে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট প্রতিষ্ঠার সময় থেকে ছাত্র ফ্রন্টে যুক্ত ছিলেন। তিনি তৎকালীন এরশাদ স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনে সক্রিয়ভাবে অংশ নেন। আমৃত্যু তিনি সকল প্রকার শোষণ-নিপীড়ন-নির্যাতনের বিরুদ্ধে সংগ্রাম চালিয়ে গেছেন।

শনিবার বিকাল ৪ টায় নারায়ণগঞ্জের চাষাঢ়াস্থ শহিদ মিনারে  প্রয়াত বাসদ নেতা ও চারণ সাংস্কৃতিক কেন্দ্র নারায়ণগঞ্জ জেলার সংগঠক সুজাউদ্দিন বাদল এর নাগরিক শোকসভায় প্রধান বক্তাঁর বক্তৃতায় এসব কথা বলেন তিনি।

কমরেড খালেকুজ্জামান বলেন, বাদল ছিলেন সৎ, সদালাপি, বন্ধুবৎসল, পরোপকারী। ব্যক্তি জীবনে অর্থনৈতিক টানাপোড়নেও কখনো এই গুনাবলীর ব্যত্যয় ঘটেনি। শহরের বনেদি পরিবারে জন্মগ্রহণ করলেও এ নিয়ে তার কোন হামবড়া ভাব ছিল না। বাসদের রাজনীতির সাথে যুক্ত হয়ে অন্যায়ের বিরুদ্ধে ন্যায়ের সংগ্রামের মধ্য দিয়ে তিনি এসব গুনাবলী অর্জন করেছেন। যে স্বৈরাচারী এরশাদের শাসনের বিরুদ্ধে তিনি রাজপথে সোচ্চার ছিলেন, সেই স্বৈরতন্ত্র ভিন্ন ধারায় আজও প্রতিষ্ঠিত।

তিনি আরও বলেন, গণতন্ত্র নির্বাসিত, এমনকি নির্বাচনী ব্যবস্থাও ভেঙ্গে পড়েছে। নির্বাচন কমিশন, দুদক, বিচার ব্যবস্থা, প্রশাসন সব সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠান আজ দলীয় প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়েছে। গণতন্ত্রের পরিবর্তে স্বৈরতান্ত্রিক ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। উন্নয়নের ডামাডোলে কোটি কোটি শোষিত গরীব মানুষের কান্না চাপা পড়ে যাচ্ছে। সুজাউদ্দিন বাদল মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার স্বপ্ন দেখেছিলেন। গত ৪৮ বছর ধরে মুক্তিযুদ্ধেও চেতনার বিপরীতে দেশ পরিচালনা করে শাসকগোষ্ঠী রাজাকারের বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠিত করেছে। বর্তমান সরকার মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে ব্যবসা করছে, মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে বিসর্জন দিয়েছে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ছিল গণতান্ত্রিক চেতনা, সাম্যের চেতনা, শোষণমুক্ত সমাজ তথা সমাজতান্ত্রিক বাংলাদেশের চেতনা। কমরেড বাদল সেই চেতনা ধারণ করে বাসদের নেতৃত্বে শোষণমুক্ত সমাজ তথা সমাজতান্ত্রিক রাস্ট্রব্যবস্থা নির্মাণের সংগ্রামে আমৃত্যু লড়াই করে গেছেন। তার এই স্বপ্নকে বুকে ধারণ করে আমরা রাজপথে লড়াই করে যাবো এই আমাদের শপথ।

নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সভাপতি এড. মাহবুবুর রহমান মাসুমের সভাপতিত্বে এবং বাসদ নেতা আবু নাঈম খান বিপ্লবের সঞ্চালনায় শোকসভায় আরো বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব রফিউর রাব্বি, নারায়ণগঞ্জ নাগরিক কমিটির সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান, সিপিবির জেলা সভাপতি হাফিজুল ইসলাম, বাসদের জেলা সমন্বয়ক নিখিল দাস, নারায়ণগঞ্জ সাংস্কৃতিক জোটের সভাপতি এড. জিয়াউল ইসলাম কাজল, ওয়ার্কার্স পার্টির সভাপতি হাফিজুর রহমান, ন্যাপ নারায়ণগঞ্জ জেলার সাধারণ সম্পাদক এড. আওলাদ হোসেন, নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পরেশনের ১৫ নং ওয়ার্ড কাউান্সিলর অসিত বরণ বিশ্বাস, গণসংহতি আন্দোলনের জেলা সমন্বয়ক তরিকুল সুজন, নারায়ণগঞ্জ সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের উপদেষ্টা ভবানী শংকর রায়, প্রয়াত সুজাউদ্দিন আহমেদ বাদলের বড় ভাই ইমতিয়াজউদ্দিন আহমেদ তারেক ও ইমতিয়াজ উদ্দিন আহমেদ জুলু।

আমাদের বাণী-আ.আ.হ/মৃধা

[wpdevart_like_box profile_id=”https://www.facebook.com/amaderbanicom-284130558933259/” connections=”show” width=”300″ height=”550″ header=”small” cover_photo=”show” locale=”en_US”]

 

Check Also

দেশে এখন ভয়াবহ অবস্থা বিরাজমান: ডা. জাফরুল্লাহ

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, ‘দেশে এখন ভয়াবহ অবস্থা বিরাজমান। কভিড-১৯ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *