যেসব স্কুলে মুসলিম শিক্ষার্থীদের জন্য পৃথক খাবার ঘর গড়ার নির্দেশনা

কোচবিহারে যেসব রাজ্য সরকারি স্কুলগুলিতে ৭০ শতাংশেরও বেশি মুসলিম সম্প্রদায়ের শিক্ষার্থী রয়েছে সেখানে আলাদা করে খাবার ঘর অর্থাৎ ‘ডাইনিং রুম’ গড়ার নির্দেশ দিয়েছে মূখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের নেতৃত্বাধীন পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকার।

রাজ্য সরকারের সেই নির্দেশ ঘিরেই তীব্র কটাক্ষ করেছেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

কোচবিহারে ৭০ শতাংশ ছাত্রছাত্রীই সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ে, এই বিষয়টি মনে করিয়ে দিয়ে সরকারের ওই নির্দেশকে ‘উদ্দেশ্যপ্রণোদিত’ বললেন দিলীপ। পাশাপাশি কিছু সংখ্যক স্কুলে ওই নিয়ম কার্যকর করা নিয়ে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে ‘পৃথকীকরণ’-এর রাজনীতিরও অভিযোগ করেন তিনি।

সম্প্রতি রাজ্য সরকার একটি নির্দেশিকা জারি করে, যেসব রাজ্য সরকারি স্কুলগুলিতে ৭০ শতাংশেরও বেশি মুসলিম সম্প্রদায়ের পড়ুয়া রয়েছে সেখানে আলাদা করে খাবার ঘর অর্থাৎ ডাইনিং রুম গড়া হবে। রাজ্য সরকারের সেই নির্দেশিকাটিকেই ট্যুইটারে তুলে ধরে এ বিষয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের সমালোচনা করেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি।

যদিও এখনও পর্যন্ত রাজ্য সরকারি কর্মকর্তাদের পক্ষ থেকে থেকে দিলীপ ঘোষের এই কটাক্ষের পালটা জবাব আসেনি। মঙ্গলবার ওই নির্দেশিকাটি কোচবিহারের জেলাশাসকের কার্যালয়ের সংখ্যালঘু বিভাগ থেকে জারি করা হয়। নির্দেশিকায় সেখানকার বিদ্যালয়গুলির জেলা স্কুল পরিদর্শকদের নির্দেশ দেওয়া হয় রাজ্য সরকারি অথবা সরকারি সাহায্যপ্রাপ্ত স্কুলগুলির মধ্যে যেগুলিতে ৭০ শতাংশের বেশি সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের পড়ুয়া রয়েছে তার একটি তালিকা পাঠাতে।

ওই স্কুলগুলিতে মিড ডে মিল পরিবেশন করার জন্যে একটি আলাদা খাওয়ার ঘর বা ডাইনিং রুম তৈরির বিষয়েও প্রস্তাব পাঠানোর কথা বলা হয় নির্দেশিকায়। রাজ্য সরকারের এই নয়া নির্দেশিকাকেই এবার রাজনীতির হাতিয়ার করতে চায় বিরোধী দল বিজেপি।

সূত্র: এনডিটিভি

Check Also

ভারতে কোভিড হাসপাতালে অগ্নিকাণ্ড: নিহত ৫

ঢাকাঃ ভারতে একটি কোভিড হাসপাতালে আগুন লেগে ৫ রোগীর মৃত্যু হয়েছে। দগ্ধ হয়েছেন আরও অনেকেই। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *