মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের গ্রাম ধ্বংস করে সরকারি অবকাঠামো নির্মাণ

মিয়ানমারে মুসলিম রোহিঙ্গাদের গ্রামগুলি গুঁড়িয়ে দেয়া হয়েছে এবং সেসব জায়গায় পুলিশ ব্যারাক, সরকারী ভবন এবং শরণার্থী স্থানান্তর শিবির স্থাপন করা হয়েছে। ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে এই তথ্য উঠে এসেছে।

বিবিসি তাদের এক অনুসন্ধানী প্রতিবেদনে জানায়, যেসব অঞ্চলে আগে রোহিঙ্গাদের বসবাস ছিল সেসব যায়গা এখন পুরোপুরি সরকারি অবকাঠামোতে রূপান্তর করা হয়েছে।

এমন চারটি রোহিঙ্গা গ্রামকে দেশটির সরকার পুরোপুরি সরকারি অবকাঠামোতে রূপান্তর করেছে, স্যাটেলাইট চিত্র থেকে বিবিসি তা জানতে সমর্থ হয়েছে।

তবে দেশটির কর্মকর্তারা এমন অভিযোগ অস্বীকার করেছে। ২০১৭ সালে ৭ লাখের বেশি রোহিঙ্গা মুসলিম দেশটির সেনাবাহিনীর অত্যাচারের মুখে মিয়ানমার ছেড়ে বাংলাদেশে পালিয়ে আসে।

মিয়ানমারের সেনাবাহিনী রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর গণহত্যা ও বর্বর নির্যাতন চালায় বলে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম ও মানবাধিকার সংগঠনগুলো অভিযোগ তুলে।

জাতিসংঘ মিয়ানমারের এই ঘটনাকে জাতিগত নিধন বলে উল্লেখ করে। তবে মিয়ানমার এসব অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করে। বর্তমানে মিয়ানমার বলছে তারা বাংলাদেশ থেকে কিছু সংখ্যক রোহিঙ্গা মুসলিমদের ফিরিয়ে নিতে প্রস্তুত।

Check Also

ভারতে কোভিড হাসপাতালে অগ্নিকাণ্ড: নিহত ৫

ঢাকাঃ ভারতে একটি কোভিড হাসপাতালে আগুন লেগে ৫ রোগীর মৃত্যু হয়েছে। দগ্ধ হয়েছেন আরও অনেকেই। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *