Breaking News

ভেতরে শিক্ষক-অভিভাবকের বৈঠক, বাইরে স্কুলছাত্রীকে কর্মচারীর ধর্ষণ

শিক্ষক ও অভিভাবকদের বৈঠক চলাকালীন স্কুলের মধ্যেই চার বছরের এক শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। পাঞ্জাবের সাঙ্গরুর জেলার ধুরি শহরের একটি বেসরকারি স্কুলে ঘটনাটি ঘটেছে। রোববার (২৬ মে) দ্য ট্রিবিউন নামক পাঞ্জাবের একটি পত্রিকায় এ খবর প্রকাশিত হয়।

ওই ঘটনার জেরে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়েছে পুরো এলাকায়। স্কুল কর্তৃপক্ষ এবং স্থানীয় প্রশাসনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভে নেমেছেন এলাকার মানুষ।

পুলিশ বলছে, গত শনিবার সকালে ওই স্কুলে অভিভাবক এবং শিক্ষকদের মধ্যে বৈঠক ছিল। তা নিয়ে ব্যস্ত ছিলেন শিশুটির মা। সেই সুযোগে শিশুটিকে ভুলিয়ে পার্কে নিয়ে যায় ২৭ বছর বয়সী স্কুলেরই একজন কর্মচারী। পরে একটি ক্লাসরুমে নিয়ে গিয়ে শিশুটিকে ধর্ষণ করেন তিনি।

বৈঠকে ব্যস্ত থাকায় কিছুই বুঝে উঠতে পারেননি শিশুটির মা। বৈঠক শেষে মেয়েকে নিয়ে বাড়ি ফিরে যান তিনি। সন্ধ্যার দিকে মেয়ে তলপেটে ব্যথা করছে বলে জানালে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যান তারা। চিকিৎসকরা জানান, ওই শিশুকে ধর্ষণ করা হয়েছে।

বিষয়টি জানাজানি হতেই থানার বাইরে জমায়েত হতে থাকেন ধুরির বাসিন্দারা। অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে তাদের হাতে তুলে দিতে হবে বলেও দাবি করেন। তার পর রোববার অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা হয়।

সাঙ্গরুরের এসএসপি সন্দীপ কুমার গর্গ জানান, অভিযুক্তকে তাদের হাতে তুলে দিতে হবে বলে দাবি করছিলেন বিক্ষোভকারীরা। কিন্তু সেটা সম্ভব নয় বলে জানিয়ে দিয়েছি বিক্ষুব্ধ জনতাকে। আইন মেনেই সবকিছু হবে।

Check Also

ভারতে কোভিড হাসপাতালে অগ্নিকাণ্ড: নিহত ৫

ঢাকাঃ ভারতে একটি কোভিড হাসপাতালে আগুন লেগে ৫ রোগীর মৃত্যু হয়েছে। দগ্ধ হয়েছেন আরও অনেকেই। …