বাংলাদেশের সংবিধান

Discuss Today

বাংলাদেশের সংবিধান

প্রশ্ন: সংবিধান বা শাসনতন্ত্র হচ্ছে একটি রাষ্ট্রের

উঃ মৌলিক আইন।

প্রশ্ন: বিশ্বের কোন দেশের কোন লিখিত সংবিধান নাই?

উঃ বৃটেন, সৌদি আরব, স্পেন ও নিউজিল্যান্ড।

প্রশ্ন: বিশ্বের সবচেয়ে বড় সংবিধান কোন দেশের?

উঃ ভারতের।

প্রশ্ন: বিশ্বের সবচেয়ে ছােট সংবিধান কোন দেশের?

উঃ যুক্তরাষ্ট্রের ।

প্রশ্ন: গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের আইন প্রণয়নকারী সর্বোচ্চ সংস্থা কোনটি?

উঃ আইনসভা তথা জাতীয় সংসদ।

প্রশ্ন: গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের সর্বোচ্চ আইন কী?

উঃ সংবিধান।

প্রশ্ন: গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের সর্বোচ্চ আদালত কোনটি?

উঃ সুপ্রিম কোর্ট।

প্রশ্ন: বাংলাদেশের সাংবিধানিক নাম কী?

উঃ গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ।

প্রশ্ন: গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের সংবিধান প্রণয়নের লক্ষ্যে “অস্থায়ী সংবিধান আদেশ জারি করা হয় কবে?

উঃ ১১ জানুয়ারি ১৯৭২।

প্রশ্ন: গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সংবিধান প্রণয়নের লক্ষ্যে ‘অস্থায়ী সংবিধান আদেশ জারি করেন কে?

উঃ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।

প্রশ্ন: বাংলাদেশ গণপরিষদের নেতা কে ছিলেন?

উঃ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান।

প্রশ্ন: বাংলাদেশ গণপরিষদের প্রথম অধিবেশনে সভাপতিত্ব করেন কে?

উঃ আবদুর রশীদ তর্কবাগীশ।

প্রশ্ন: বাংলাদেশ গণপরিষদের স্পিকার কে ছিলেন?

উঃ শাহ আব্দুল হামিদ।

প্রশ্ন: বাংলাদেশ গণপরিষদের ডেপুটি স্পিকার কে ছিলেন?

উঃ মােহাম্মদ উল্লাহ।

প্রশ্ন: বাংলাদেশ গণপরিষদের সদস্য সংখ্যা কতজন ছিল?

উঃ ৪০৩ জন (কিন্তু কিন্তু হস্ত লিখিত মূল সংবিধানে গণপরিষদের ৩০৯ জন স্বাক্ষর করেন)।

প্রশ্ন: বাংলাদেশ সংবিধান সর্বপ্রথম কোন তারিখে গণপরিষদে উত্থাপিত হয়?

উঃ ১২ অক্টোবর, ১৯৭২।

প্রশ্ন: বাংলাদেশ সংবিধান কোন তারিখে গণপরিষদে গৃহীত হয়?

উঃ ০৪ নভেম্বর, ১৯৭২।

প্রশ্ন: গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সংবিধান কোন তারিখে কার্যকর/বলব করা হয়?

উঃ ১৬ ডিসেম্বর, ১৯৭২।

প্রশ্ন: গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সংবিধান প্রবর্তিত হয় কবে?

উঃ ১৬ ডিসেম্বর, ১৯৭২।

প্রশ্ন: বাংলাদেশ গণপরিষদের প্রথম অধিবেশন কবে অনুষ্ঠিত হয়?

উঃ ১০ এপ্রিল, ১৯৭২।

প্রশ্ন: সংবিধান প্রণয়ন কমিটি কতজন সদস্য নিয়ে গঠন করা হয়?

উঃ ৩৪ জন।

প্রশ্ন: সংবিধান রচনা কমিটির প্রধান কে ছিলেন?

উঃ ড. কামাল হােসেন।

প্রশ্ন: বাংলাদেশের সংবিধান রচনা কমিটির একমাত্র মহিলা সদস্য কে ছিলেন?

উঃ বেগম রাজিয়া বানু।

প্রশ্ন: বাংলাদেশের সংবিধান রচনা কমিটির একমাত্র বিরােধী দলীয় সদস্য কে ছিলেন?

উঃ সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত।

প্রশ্ন: বাংলাদেশ সংবিধানের কয়টি পাঠ রয়েছে?

উঃ ২ টি। বাংলা ও ইংরেজি।

প্রশ্ন: কী দিয়ে বাংলাদেশের সংবিধান শুরু ও শেষ হয়েছে?

উঃ প্রস্তাবনা দিয়ে শুরু ও ৭টি তফসিল দিয়ে শেষ।

প্রশ্ন: বাংলাদেশ সংবিধানের অনুচ্ছেদ/ধারা কতটি?

উঃ ১৫৩ টি।

প্রশ্ন: বাংলাদেশ সংবিধানের কয়টি ভাগ/অধ্যায় রয়েছে?

উঃ ১১ টি।

প্রশ্ন: বাংলাদেশ সংবিধানের কয়টি তফসিল রয়েছে?

উঃ ৭ টি।

প্রশ্ন: বাংলাদেশের সংবিধানের মূলনীতি কয়টি?

উঃ ৪ টি।

প্রশ্ন: বাংলাদেশের সংবিধানের প্রধান বৈশিষ্ট্য কয়টি?

উঃ ১২ টি।

প্রশ্ন: বাংলাদশের প্রথম হস্তলিখিত সংবিধানের মূল লেখক কে ছিলেন?

উঃ আবদুর রউফ।

প্রশ্ন: প্রধানমন্ত্রীর পরামর্শ ছাড়া কোন কাজ রাষ্ট্রপতি এককভাবে করতে সক্ষম?

উঃ প্রধান বিচারপতির নিয়ােগ দান ও প্রধানমন্ত্রী নিয়ােগ।

প্রশ্ন: রাষ্ট্রপতির মেয়াদকাল কত বছর?

উঃ কার্যভার গ্রহণের কাল থেকে পরবর্তী ৫ বছর।

প্রশ্ন: একজন ব্যক্তি বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি হতে পারবেন কত মেয়াদকাল পর্যন্ত?

উঃ সর্বোচ্চ ২ মেয়াদকাল।

প্রশ্ন: কার উপর আদালতের কোন এখতিয়ার নেই?

উঃ রাষ্ট্রপতি।

প্রশ্ন: বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের সভাপতি কে?

উঃ স্পিকার।

প্রশ্ন: বাংলাদেশের আইনসভার সভাপতি কে?

উঃ স্পিকার।

প্রশ্ন: রাষ্ট্রপতি পদত্যাগ করতে চাইলে কাকে উদ্দেশ্য করে পদত্যাগপত্র লিখবেন?

উঃ স্পিকারের উদ্দেশ্যে।

প্রশ্ন: প্রধানমন্ত্রী, মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী ও উপ-মন্ত্রীদের নিয়ােগ প্রদান করেন কে?

উঃ রাষ্ট্রপতি।

প্রশ্ন: অ্যাটর্নি জেনারেল পদে নিয়ােগ দান করেন কে?

উঃ রাষ্ট্রপতি।

প্রশ্ন: সংসদ ভেঙে দেয়ার ক্ষমতা কার?

উঃ রাষ্ট্রপতির (প্রধানমন্ত্রীর লিখিত পরামর্শক্রমে)

প্রশ্ন: বাংলাদেশের সর্বোচ্চ আদালত কোনটি?

উঃ সুপ্রীম কোর্ট।

প্রশ্ন: সুপ্রীম কোর্টের কয়টি বিভাগ আছে?

উঃ ২টি । আপিল বিভাগ ও হাইকোর্ট বিভাগ।

প্রশ্ন: সুপ্রীম কোর্টের বিচারপতিদের মেয়াদকাল কত?

উঃ ৬৭ বছর বয়স পর্যন্ত।

প্রশ্ন: বাংলাদেশের সংবিধানের মূলনীতি কয়টি?

উঃ ৪ টি।

প্রশ্ন: বাংলাদেশের সংবিধানের মূলনীতিগুলাে কী কী?

উঃ জাতীয়তাবাদ, সমাজতন্ত্র, গণতন্ত্র ও ধর্মনিরপেক্ষতা।

প্রশ্ন: বাংলাদেশের সংবিধানের মূলনীতিসমূহের উল্লেখ আছে কোন অনুচ্ছেদে?

উঃ ৮ নং অনুচ্ছেদ।

প্রশ্ন: বাংলাদেশ সংবিধানের অন্যতম মূলনীতি “ধর্মনিরপেক্ষতা” বাদ দেয়া হয় কবে?

উঃ ১৯৭৮ সালে। (১৯৭৮ সালের রাষ্ট্রপতির ২য় ঘােষণাপত্র আদেশের। মাধ্যমে। তবে বাংলাদেশের সংবিধানে ধর্মনিরপেক্ষতা এর স্থলে এক আল্লাহর প্রতি পূর্ণ আস্থা ও বিশ্বাস প্রতিস্থাপন করা হয় ১৯৭৯ সালে সংবিধানের পঞ্চম সংশোধনীর মাধ্যমে।)

প্রশ্ন: কোন সালে বাংলাদেশ সংবিধানের শুরুতে ‘বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম” সন্নিবেশিত করা হয়?

উঃ ১৯৭৯ সালে। (সংবিধানের পঞ্চম সংশােধনীর মাধ্যমে)

প্রশ্ন: বাংলাদেশের সংবিধানে ‘বাঙালী জাতীয়তাবাদ এর পরিবর্তে বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদ প্রবর্তন করা হয়েছিল কবে?

উঃ ১৯৭৯ সালে।
(সংবিধানের পঞ্চম সংশােধনীর মাধ্যমে। কিন্তু বাংলাদেশের সংবিধানের কথা উল্লেখ না করে যদি বলা হয়, বাংলাদেশে ‘বাঙালী জাতীয়তাবাদের পরিবর্তে বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদ প্রবর্তন করা হয়েছিল কবে? তখন উত্তর হবে ১৯৭৮ সালে। কেননা, ১৯৭৮ সালের রাষ্ট্রপতির ২য় ঘােষণাপত্র আদেশের মাধ্যমে বাঙালী জাতীয়তাবাদ’ এর পরিবর্তে বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদ প্রবর্তন করা হয়েছিল। তবে তখন বিষয়টি সাথে সাথে সংবিধানে পরিবর্তন করা হয় নি। পরবর্তীতে, ১৯৭৯ সালে সংবিধানের পঞ্চম সংশােধনীর মাধ্যমে বিষয়টি সংবিধানে পরিবর্তন করা হয়।)

নোট মোস্তাফিজার মোস্তাক

Check Also

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সংক্ষিপ্ত জীবনী

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সংক্ষিপ্ত জীবনী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনী থেকে কেবল পরীক্ষায় আসার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *