বাংলাদেশের কৃষি

Discuss Today

বাংলাদেশের কৃষি

প্রশ্ন: বাংলাদেশে বেশি উৎপাদিত হয় কোনটি?

উঃ বােরাে ধান

প্রশ্ন: বাংলাদেশে রােপা আমন কাটা হয় কখন?

উঃ অগ্রহায়ণ-পৌষ মাসে।

প্রশ্ন: বাংলাদেশে প্রধান বীজ উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠান কোনটি?

উঃ বিএডিসি

প্রশ্ন: কৃষি কাজের জন্য সর্বাপেক্ষা উপযােগী মাটি?

উঃ দোঁ-আশ মাটি।

প্রশ্ন: কোন মাটির পানির ধারণ ক্ষমতা সবচেয়ে বেশি?

উঃ এঁটেল মাটি।

প্রশ্ন: বাংলাদেশের প্রধান খাদ্যশস্য কী?

উঃ ধান।

প্রশ্ন: বাংলাদেশের দ্বিতীয় প্রধান খাদ্যশস্য কী?

উঃ গম

প্রশ্ন: বাংলাদেশের প্রধান অর্থকরী ফসল কী?

উঃ আলু (সূত্র: কৃষি তথ্য সার্ভিস);
পাট (সূত্র: ভূগােল ও পরিবেশ, নবম দশম শ্রেণি, পৃ. ১৬৭]।

প্রশ্ন: চাষাবাদের সুবিধার্থে বাংলাদেশের ঋতুকে কয় ভাগে ভাগ করা হয়েছে?

উঃ ২ ভাগে। যথা- রবি ঋতু ও খরিপ ঋতু।

প্রশ্ন: রবি শস্য বলতে বুঝায়?

উঃ শীতকালীন শস্যকে।
(শীতকালে রােদের বেশি প্রয়ােজন হয়,অতএব শীতকালীন শস্যকে রবি শস্য বলে)

প্রশ্ন: খরিপ শস্য বলতে বুঝায়?

উঃ গ্রীষ্মকালীন শস্যকে।
(গ্রীষ্মকালে গরম বেশি লাগে, অতএব এটি খারাপ!)

প্রশ্ন: বাংলাদেশে কৃষির রবি মৌসুম কোনটি?

উঃ আশ্বিন-ফাল্গুন মাস।
(রবি আর আশ্বিনের প্রেম ফাল্গুনীর সাথে!)

প্রশ্ন: বাংলাদেশে কৃষির খরিপ মৌসুম কোনটি?

উঃ চৈত্র-জ্যৈষ্ঠ মাস।

প্রশ্ন: বাংলাদেশের ধান চাষকে প্রধানত কয়টি ভাগে ভাগ করা হয়েছে?

উঃ ৩ ভাগে। যথা-
১. বােরাে
২.আমন
৩. আউশ

প্রশ্ন: বাংলাদেশের প্রধান ধান চাষ কোনটি?

উঃ বােরাে

প্রশ্ন: বাংলাদেশে কোন ধানকে ‘বাসন্তিক ধান বলা হয়?

উঃ বােরাে ধান

প্রশ্ন: বন্যাপ্রবণ নিচু এলাকায় কোন ধানের চাষ বেশি উপযােগী?

উঃ আউশ ধান (কারণ এই ধানের চাষ সবচেয়ে কম সময়ে ফসল ঘরে তােলা যায়)

প্রশ্ন: বাংলাদেশে কোন ধানের চাষ সবচেয়ে বেশি জমিতে করা হয়?

উঃ আউশ ধান
(কিন্তু বাংলাদেশে সবচেয়ে বেশি ফসল ফলে বােরাে ধান এবং বােরাে ধানের চাষ বাংলাদেশের প্রধান ধান চাষ)

প্রশ্ন: বাংলাদেশের শস্য ভাণ্ডার’ বলা হয় কোন জেলাকে?

উঃ বরিশাল।

প্রশ্ন: বাংলাদেশের ‘কৃষির স্বর্ণযুগ’ বলা হয় কোন সময়কালকে?

উঃ আশির দশক

প্রশ্ন: সবচেয়ে বেশি ধান উৎপন্ন হয় কোন জেলায়?

উঃ ময়মনসিংহ।

প্রশ্ন: সবচেয়ে বেশি পাট উৎপন্ন হয় কোন জেলায়?

উঃ ফরিদপুর ।

প্রশ্ন: বিশ্বে ধান উৎপাদনে বাংলাদেশের অবস্থান?

উঃ ৩য়। (আপডেট: অক্টোবর, ২০২০)

প্রশ্ন: পাট উৎপাদনে বিশ্বে বাংলাদেশের স্থান?

উঃ দ্বিতীয়* (আপডেট: অক্টোবর, ২০২০)

প্রশ্ন: পাট রপ্তানিতে বাংলাদেশের অবস্থান কততম?

উঃ প্রথম* (উৎপাদনে ২য়)।

প্রশ্ন: বাংলাদেশ কোন দেশে পাটজাত পণ্য বেশি রপ্তানি করে?

উঃ তুরস্ক (কিন্তু বাংলাদেশ তৈরি পােশাক বেশি রপ্তানি করে যুক্তরাষ্ট্রে)

প্রশ্ন: পাটের জীবন রহস্য উন্মোচন করেন কে?

উঃ ড. মাকসুদুল আলম।

প্রশ্ন: বাংলাদেশে কোথায় সবচেয়ে বেশি গম জন্মে?

উঃ ঠাকুরগাঁও জেলায়।

প্রশ্ন: বাংলাদেশের গম গবেষণা কেন্দ্র কোন জেলায় অবস্থিত?

উঃ দিনাজপুর।

প্রশ্ন: বাংলাদেশে প্রথম কখন চা চাষ করা হয়?

উঃ ১৮৪০ সালে চট্টগ্রাম ক্লাব প্রাঙ্গণে।

প্রশ্ন: বাংলাদেশে বাণিজ্যিকভাবে প্রথম কখন চা চাষ করা হয়?

উঃ ১৮৫৪ সালে সিলেটের মালনিছড়ায় (সূত্র:বাংলাদেশ চা বাের্ড।

প্রশ্ন: বাংলাদেশের প্রথম চা বাগান কোনটি?

উঃ সিলেটের মালনিছড়া চা বাগান।

প্রশ্ন: সবচেয়ে বেশি চা জন্মে কোন জেলায়?

উঃ মৌলভীবাজার জেলায়।

প্রশ্ন: বাংলাদেশের কোন জেলায় অর্গানিক চা উৎপন্ন হয়?

উঃ পঞ্চগড় জেলায়।

প্রশ্ন: বাংলাদেশের চা গবেষণা কেন্দ্র কোথায় অবস্থিত?

উঃ মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গলে ।

প্রশ্ন: বাংলাদেশে বর্তমানে মােট নিবন্ধিত চা বাগানের সংখ্যা কত?

উঃ ১৬৭ টি। [সূত্র: বাংলাদেশ চা বাের্ড]

প্রশ্ন: বাংলাদেশের সর্বশেষ নিবন্ধিত চা বাগানের নাম কী?

উঃ গারাে হিল্স টি (শেরপুর জেলায় অবস্থিত)

প্রশ্ন: বাংলাদেশের কোন জেলায় সবচেয়ে বেশি রেশম উৎপন্ন হয়?

উঃ চাঁপাইনবাবগঞ্জে।

প্রশ্ন: বাংলাদেশ রেশম উন্নয়ন বাের্ড কোথায় অবস্থিত?

উঃ রাজশাহীতে

প্রশ্ন: বাংলাদেশের কোন জেলায় সবচেয়ে বেশি আম উৎপন্ন হয়?

উঃ চাঁপাইনবাবগঞ্জে । (মােট উৎপাদনের প্রায় অর্ধেক)

প্রশ্ন: বাংলাদেশে কোথায় সবচেয়ে বেশি তুলা জন্মে?

উঃ ঝিনাইদহ জেলায়। সূত্র: কৃষি পরিসংখ্যান বর্ষগ্রন্থ-২০১৯)
(কিন্তু তুলা চাষের জন্য সবচেয়ে উপযােগী/উর্বর জেলা হলাে যশাের জেলা)

প্রশ্ন: বর্তমানে বাংলাদেশের কোন জেলায় সবচেয়ে বেশি আলু জন্মে?

উঃ বগুড়া জেলায়। (সূত্র: কৃষি পরিসংখ্যান বর্ষগ্রন্থ-২০১৯)
(কিন্তু আলু চাষের জন্য সবচেয়ে উপযােগী/উর্বর জেলা হলাে- মুন্সিগঞ্জ জেলা)

প্রশ্ন: বর্তমানে বাংলাদেশে কোথায় সবচেয়ে বেশি তামাক জন্মে?

উঃ কুষ্টিয়া জেলায় [সূত্র: কৃষি পরিসংখ্যান বর্ষগ্রন্থ-২০১৯]

প্রশ্ন: বাংলাদেশে কোথায় সবচেয়ে বেশি রাবার জন্মে?

উঃ কক্সবাজার জেলার রামুতে।

প্রশ্ন: বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় সেচ প্রকল্প কোনটি?

উঃ তিস্তা সেচ প্রকল্প।

প্রশ্ন: তিস্তা ব্যারেজ কোথায় অবস্থতি?

উঃ লালমনিরহাট জেলার হাতিবান্দা উপজেলায়।

প্রশ্ন: তিস্তা সেচ প্রকল্পের আওতায় কতটি জেলাকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে?

উঃ ৩ টি জেলাকে।

প্রশ্ন: তিস্তা সেচ প্রকল্পের আওতায় কোন কোন জেলাকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে?

উঃ নীলফামারী, রংপুর ও দিনাজপুর জেলা।

প্রশ্ন: বাংলাদেশে ধান গবেষণা কেন্দ্রের সংক্ষিপ্ত নাম কি এবং কোথায় অবস্থিত?

উঃ BRRI, গাজীপুর জেলায়।

প্রশ্ন: ‘BRRI’ বলতে কী বুঝায়?

উ: Bangladesh Rich Research Institute.

প্রশ্ন: ‘BADC’ বলতে কী বুঝায়?

উ: Bangladesh Agricultural Development Corporation.অর্থাৎ বাংলাদেশে কৃষি উন্নয়ন করপােরেশন’।

প্রশ্ন: ‘BADC’ এর সদরদপ্তর কোথায় অবস্থিত?

উঃ ঢাকা।

প্রশ্ন: ‘BARD’ বলতে কী বুঝায়?

উ: Bangladesh Academy for Rural Development.

প্রশ্ন: BARD’ বা ‘বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন একাডেমি’ কোথায় অবস্থিত?

উঃ কুমিল্লা।

প্রশ্ন: ‘BARD’ এর প্রতিষ্ঠাতা কে?

উঃ ড. আখতার হামিদ খান।

প্রশ্ন: ‘BARD’ কত সালে প্রতিষ্ঠিত হয়?

উঃ ১৯৫৯ সালে।

প্রশ্ন: জুটন আবিস্কার করেন কে?

উঃ ড. মােহাম্মদ সিদ্দিকুল্লাহ।

প্রশ্ন: সর্বশেষ কৃষিশুমারি অনুষ্ঠিত হয় কবে?

উঃ ২০১৯ সালের জুন মাসে।

প্রশ্ন: সর্বশেষ কততম কৃষিশুমারি অনুষ্ঠিত হয়?

উঃ ৬ষ্ঠতম। (২০১৯ সালে)

প্রশ্ন: বাংলাদেশে কোন জাতের ছাগল সর্বাপেক্ষা বেশি পাওয়া যায়?

উঃ ব্ল্যাক বেঙ্গল।

প্রশ্ন: ভারতের বিহার রাজ্যের কী নামে পরিচিত?

উঃ রাম ছাগল।

প্রশ্ন: বাংলাদেশ গবাদি পশু গবেষণা ইনস্টিটিউট কোথায় অবস্থিত?

উঃ ঢাকার সাভারে।

প্রশ্ন: বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় গাে-প্রজনন ও দুগ্ধ খামার কোথায় অবস্থিত?

উঃ ঢাকার সাভারে।

প্রশ্ন: বাংলাদেশের পাহাড়ি অঞ্চলে কোন ধরনের চাষাবাদ বেশি দেখা যায়?

উঃ জুম চাষ।

প্রশ্ন: বাংলাদেশের কোন অঞ্চলে আনারস চাষ বেশি হয়?

উঃ পার্বত্য চট্টগ্রাম ও সিলেট অঞ্চলে।

প্রশ্ন: বাংলাদেশের অর্থনীতির প্রধান খাত কোনটি?

উঃ সেবা খাত।
(নােট: বাংলাদেশ সরকারের রাজস্ব আয়ের প্রধান খাত ভ্যাট । বাংলাদেশ সরকারের রপ্তানি আয়ের প্রধান খাত হলাে- তৈরি পােশাক)

প্রশ্ন: মূল্য পরিমাপে বাংলাদেশে কোন কৃষিপণ্য সবচেয়ে বেশি উৎপাদিত হয়?

উঃ ধান।

প্রশ্ন: ইউরিয়া সার তৈরিতে প্রধান কাঁচামাল হিসেবে কী ব্যবহৃত হয়?

উঃ প্রাকৃতিক গ্যাস

প্রশ্ন: ‘সােনালি আঁশ বলা হয় কাকে?

উঃ পাটকে

প্রশ্ন: ‘সােনালি আঁশের দেশ বলা হয় কোন দেশকে?

উঃ বাংলাদেশকে

প্রশ্ন: সবচেয়ে উন্নতজাতের আঁশ পাওয়া যায় কোন জাতীয় পাটগাছ থেকে?

উঃ তােষা জাতীয় পাটগাছ।

প্রশ্ন: কোন মাটি পাট চাষের জন্য বেশি উপযােগী?

উঃ দোআঁশ মাটি।

প্রশ্ন: কোন জমি চা চাষের জন্য বেশি উপযােগী?

উঃ অধিক বৃষ্টিপাত সমৃদ্ধ পাহাড়ি ঢালু অঞ্চল।

প্রশ্ন: বাংলাদেশের উত্তরবঙ্গের একমাত্র কোন জেলায় অর্গানিক চা চাষ হচ্ছে?

উঃ পঞ্চগড় জেলায়।

প্রশ্ন: বাংলাদেশে আখের সবচেয়ে পরিচিত রােগের নাম কী?

উঃ লাল পচা রােগ।

প্রশ্ন: ‘হােয়াইট গােল্ড’ বলা হয় কাকে?

উঃ বাগদা চিংড়ি মাছকে।

প্রশ্ন: ব্ল্যাক গােল্ড বলা হয় কাকে?

উঃ কক্সবাজার সমুদ্র সৈকত এর খনিজ বালিকে ।

প্রশ্ন: ‘ব্ল্যাক বেঙ্গল বলা হয় কাকে?

উঃ উন্নতমানের ছাগলকে।

প্রশ্ন: ‘ব্ল্যাক টাইগার বলা হয় কাকে?

উঃ বাংলাদেশের বাগদা চিংড়িকে।

প্রশ: বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পুরস্কার, প্রবর্তন করা হয় কখন?

উঃ ১৯৭৩ সালে।

প্রশ: বাংলাদেশে হাইব্রিড ধান চাষ শুরু হয় কবে?

উঃ ১৯৯৮ সালে।

প্রশ: ছত্রাকের জীবন রহস্য কোন বিজ্ঞানী উন্মােচন করেন?

উঃ ড. মাকসুদুল আলম

প্রশ: আফ্রিকার কোন দেশে বাংলাদেশ প্রথম কৃষি কাজ শুরু করে?

উঃ সেনেগাল।

প্রশ্ন: বাংলাদেশে FAO কর্তৃক ঘােষিত কৃষি ঐতিহ্য সাইট কয়টি ও কী কী?

উঃ ১টি, ভাসমান চাষ পদ্ধতি।

প্রশ্ন: সার্ক কৃষি তথ্য কেন্দ্রের সদর দপ্তর কোথায়?

উঃ ঢাকার ফার্মগেইটে।

প্রশ্ন: বাংলাদেশের অতি পরিচিত গােল আলু কোন দেশ থেকে আনা হয়?

উঃ হল্যান্ড থেকে (যার বর্তমান নাম- নেদারল্যান্ড)

প্রশ্ন: দেশের প্রথম ‘পাখি অভয়ারণ্য কোথায় অবস্থিত?

উঃ ঢাকার সাভারে।

প্রশ্ন: বাংলাদেশের কোন বিজ্ঞানী কলিঙ্গ পুরস্কার লাভের গৌরব অর্জন করেছেন?

উঃ ড. আবদুল্লাহ আল-মুতি শরফুদ্দিন প্রথম ও একমাত্র বাংলাদেশি যিনি ইউনেস্কোর কলিঙ্গ পুরস্কার লাভ করেন। তিনি ১৯৮৩ সালে এ পুরস্কার লাভ করেন। এছাড়াও তিনি ১৯৫৯ সালে ইউনেস্কো সাহিত্য পুরস্কার লাভ করেন।

প্রশ্ন: ‘উদ্ভিদের জীবন আছে’- এই কথা সর্বপ্রথম প্রমাণ করেন কে?

উঃ স্যার জগদীশ চন্দ্র বসু
(বাড়ি: মুন্সিগঞ্জ জেলা)।

প্রশ্ন: পাটের জীবনরহস্য আবিষ্কার করেন কে?

উঃ ড. মাকসুদুল আলম
(বাড়ি: ফরিদপুর জেলা)

কৃষির বিভিন্ন ফসলের উন্নতজাত বা সংকর জাত:

১। আলুর একটি জাত

– ডায়মন্ড

২। ‘অগ্নিশ্বর’ কী ফসলের একটি উন্নত জাত?

– কলা

৩। ‘বর্ণালী ও ‘শুভ্র’ কী?

– উন্নত জাতের ভুট্টা

৪। সােনালিকা ও ‘আকবর বাংলাদেশের কৃষিক্ষেত্রে কিসের নাম?

– উন্নত জাতের গমের নাম

৫। বাংলাদেশের কৃষিতে ‘দোয়েল’ কিসের নাম?

– উন্নত জাতের গমের নাম

৬। বাংলাদেশের কৃষিক্ষেত্রে বলাকা ও ‘দোয়েল’ নাম দুটি কিসের?

– উন্নত জাতের গমের নাম

৭। ‘ইরাটম’ কী?

– উন্নত জাতের ধান

৮। অগ্নিশ্বর, কানাইবাঁশী, মােহনবাশী, বীটজবা যে জাতীয় ফসলের নাম

– কলা

৯। ‘রবি-১ কী?

– পাটের উন্নত জাতের নাম

১০। কোন ফসলের উচ্চ ফলনশীল জাতকে বলে

>উফশী

কিছু উচ্চ ফলনশীল জাতঃ-

১। পদ্মা নদী বাদে > তরমুজের উন্নত জাত

২। ‘যমুনা’ নদী বাদে > মরিচের উন্নত জাত

৩। ‘মহানন্দা নদী বাদে> আমের উন্নত জাত

৪। পাখি ছাড়া ‘ময়না > ধানের উন্নত জাত

। পাখি ছাড়া ‘দোয়েল”, ‘বলাকা > গমের উন্নত জাত

ধানের উন্নত জাত

= হীরা, মুক্তা, আশা, মালা, ময়না, ইরাটম, ইরি, প্রগতি, সােনার বাংলা-১, নারিকা-১, আলােক- ৬২১০।

লবণাক্তসহিষ্ণু ধান

= বিনা-৮, বিনা-৯

খরাসহিষ্ণু ধান

= নারিকা-১

মঙ্গা এলাকার ধান

= বিআর-৩৩

বন্যা পরবর্তী এলাকার উপযুক্ত ধান

= ব্রি ধান ৪৬।

গমের উন্নত জাত

= বলাকা, দোয়েল, সােনালিকা, আকবর, আনন্দ, কাঞ্চন, শতাব্দী।

তুলার উন্নত জাত

= রূপালী ও ডেলফোজ

ভুট্টার উন্নত জাত

= বর্ণালী ও শুভ্র, উত্তরণ

তামাকের উন্নত জাত

= সুমাত্রা, ম্যানিলা

আলুর উন্নত জাত

= ডায়মন্ড, কার্ডিনাল, কুফরী ও সিন্দুরী

টমেটোর উন্নত জাত

= বাহার, মানিক, রতন, মিন্টো, ঝুমকা, সিদুর, শ্রাবণী ।

বেগুনের উন্নত জাত

= শুকতারা, তারাপুরী,ইওরা ।

কলার উন্নত জাত

= মােহনবাশী, কানাইবাশী, অগ্নিশ্বর, সিঙ্গাপুরী, বীজটবা।

আমের উন্নত জাত

= মােহনভােগ, মহানন্দা, গােপালভােগ, ল্যাংড়া, ফজলি, আম্রপলি, ক্ষীরসাপাতি
(নােট: চাঁপাইনবাবগঞ্জের বিখ্যাত আমের নাম- ক্ষীরসাপাতি’; যার অপরনাম “হিমসাগর।)।

কুমড়ার উন্নত জাত

= ‘হাজী ও ‘দানেশ’।

সরিষার উন্নত জাত

=‘সফল’ ও ‘অগ্রণী।

তরমুজের উন্নত জাত

= মধুবালা।

কৃষি সম্পর্কিত বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের অবস্থান:

বাংলাদেশের বৃহত্তম কৃষি খামার

> দত্তনগর কৃষি খামার, ঝিনাইদহ জেলার মহেশপুর।

জাতীয় বীজাগার

> গাজীপুর

আঞ্চলিক বীজাগার

> ঈশ্বরদী,পাবনা।

বাংলাদেশ কৃষি গবেষণা ইনস্টিটিউট

> গাজীপুর

বাংলাদেশ ধান গবেষণা ইনস্টিটিউট / বাংলাদেশ রাইস রিসার্চ ইনস্টিটিউট

> গাজীপুর

বাংলাদেশ পাট গবেষণা ইনস্টিটিউট

> মানিক মিয়া এভিনিউ, ঢাকা

বাংলাদেশ চা গবেষণা ইনস্টিটিউট

> মৌলভীবাজার জেলার শ্রীমঙ্গলে

বাংলাদেশ ইক্ষু গবেষণা ইনস্টিটিউট

>পাবনার ঈশ্বরদী

বাংলাদেশ গম গবেষণা কেন্দ্র

> দিনাজপুর

বাংলাদেশ মসলা গবেষণা কেন্দ্র

> বগুড়া

বাংলাদেশ ডাল গবেষণা কেন্দ্র

> পাবনার ঈশ্বরদী

বাংলাদেশ ফল গবেষণা কেন্দ্র

> রাজশাহী

বাংলাদেশ ফিসারিজ রিচার্জ ইনিস্টিটিউট (বাংলাদেশ মৎস্য গবেষণা ইনিস্টিটিউট)

> ময়মনসিংহ জেলায়

ফিসারিজ ট্রেনিং ইনিস্টিটিউট

> চাঁদপুর জেলায়

বাংলাদেশের স্বাদু পানির মাছ গবেষণা কেন্দ্র

> ময়মনসিংহ জেলায়

বাংলাদেশের লােনা পানির মাছ গবেষণা কেন্দ্র

> খুলনা জেলায়

বাংলাদেশ মেরিন ফিশারিজ একাডেমি

> চট্টগ্রাম জেলায়

বাংলাদেশ চিংড়ি গবেষণা কেন্দ্র

> বাগেরহাট জেলায়

বাংলাদেশের প্রথম ‘ফিশ ওয়ার্ল্ড একুরিয়াম অবস্থিত

>কক্সবাজার জেলায়

নোট মোস্তাফিজার মোস্তাক

Check Also

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সংক্ষিপ্ত জীবনী

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সংক্ষিপ্ত জীবনী বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবনী থেকে কেবল পরীক্ষায় আসার …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *