টানা দেড় বছর পালাক্রমে কিশোরীক ৬ জন মিলে গণধর্ষণ

দেড় বছর ধরে এক দরিদ্র কিশোরীকে (১৬) গণধর্ষণের অভিযোগে পিতাপুত্রসহ ৬জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ভারতের ভোপালের ইনদওরের এ ঘটনায় অভিযুক্তদের মধ্যে রয়েছে বছর পঞ্চাশের এক ঠিকাদার, তার ছেলে, ভাইয়ের ছেলে ও আরও তিন জন।

কিশোরীর বাবা এক বহুতল ভবনের নিরাপত্তারক্ষী হিসেবে কর্মরত, মা মারা গেলে ছোটবোনকে নিয়ে বাবা কাজে চলে যেতেন। একদিন এক মাঝবয়সী ঠিকাদার টাকার বিনিময়ে তার ছেলেমেয়েদের দেখাশোনা করার প্রস্তাব দেয় ঐ কিশোরীকে। বাবা কাজে বেরোলেই আসত অভিযুক্ত ঠিকাদার, এক সময়ে মেয়েটি রাজিও হয় কাজে।

কিশোরীর অভিযোগ, ঠিকাদারের বাড়িতে যাতায়াত শুরু হওয়ার পরে তাকে ফোনে অশ্নীল ছবি দেখিয়ে ধর্ষণ করত ওই ব্যক্তি।

শুধু ওই মধ্যবয়স্ক পিতাই নয়, তার ২৩ বছরের ছেলেও যৌন নির্যাতন চালায় মেয়েটির ওপর। কয়েক সপ্তাহ বাদে ঠিকাদারের ভাই এর নাবালক ছেলেকে সব জানিয়ে তার কাছে সাহায্য চায় কিশোরী। কিন্তু, নাবালক সেই ছেলেটিও কিশোরীকে ধর্ষণ করে। শুধু তাই নয়, তার সঙ্গে যোগ দেয় আরও তিন প্রতিবেশী যুবক।

এরপর নিয়মিতভাবে চলতে থাকে ধর্ষণ-গণধর্ষণ, এমন লাগাতার নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে শেষমেশ নিজের বাবাকে সব খুলে বলে মেয়েটি। খবর পেয়ে পুলিশ ছয় অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে।

Check Also

ভারতে কোভিড হাসপাতালে অগ্নিকাণ্ড: নিহত ৫

ঢাকাঃ ভারতে একটি কোভিড হাসপাতালে আগুন লেগে ৫ রোগীর মৃত্যু হয়েছে। দগ্ধ হয়েছেন আরও অনেকেই। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *