আ’লীগের কমিটিতে জায়গা পেলেন না শিক্ষা উপমন্ত্রী

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের ২১তম কাউন্সিলের মাধ্যমে আবারো সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ নিয়ে নবমবারের মতো দলটির সভাপতি নির্বাচিত হলেন তিনি। আর টানা দ্বিতীয়বারের মতো ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন ওবায়দুল কাদের।

শনিবার রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন বাংলাদেশ (আইইবি) মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশনে নতুন নেতৃত্ব ঘোষণা করা হয়।

সম্মেলনে সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক ছাড়াও নতুন কমিটিতে দায়িত্ব পাওয়া অনেকের নাম ঘোষণা করা হয়েছে। তবে, ঘোষিত আংশিক কমিটিতে দলের বিদায়ী কেন্দ্রীয় কমিটির পদধারী ও বর্তমান সরকারের মন্ত্রিসভায় দায়িত্ব পালন করছেন এমন পাঁচ নেতা স্থান পাননি। তারা হলেন, সদ্য বিদায়ী কমিটির আইন বিষয়ক সম্পাদক ও বর্তমান গণপূর্ত মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম, বিদায়ী কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক ও নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক ও সরকারের মহিলা ও শিশুবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন্নেছা ইন্দিরা, বিদায়ী সাংগঠনিক সম্পাদক ও পানিসম্পদ উপমন্ত্রী এনামুল হক শামীম এবং বিদায়ী সাংগঠনিক সম্পাদক ও শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল।

এক নজরে আওয়ামী লীগের কমিটি:

সভাপতি- শেখ হাসিনা

সাধারণ সম্পদক- ওবায়দুল কাদের

সভাপতিমণ্ডলীর সদস্যরা হলেন- সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী, বেগম মতিয়া চৌধুরী, শেখ ফজলুল করিম সেলিম, মোহাম্মদ নাসিম, কাজী জাফর উল্লাহ, অ্যাডভোকেট সাহারা খাতুন, নুরুল ইসলাম নাহিদ, ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন, পীযুষ কান্তি ভট্টাচার্য্য, ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক, লেফটেন‌্যান্ট কর্নেল (অব.) মুহাম্মদ ফারুক খান, রমেশ চন্দ্র সেন, অ্যাডভোটেক আব্দুল মান্নান খান, অ্যাডভোকেট আবদুল মতিন খসরু, মো. শাজাহান খান, জাহাঙ্গীর কবির নানক এবং মো. আব্দুর রহমান।

যুগ্ম সাধারণ সম্পাদকরা হলেন- মাহাবুব-উল-আলম হানিফ, ডা. দীপু মনি, হাছান মাহমুদ, বাহাউদ্দিন নাছিম।

সাংগঠনিক সম্পাদক হলেন যারা- আহমদ হোসেন, বিএম মোজাম্মেল হক, আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন, এসএম কামাল হোসেন এবং মির্জা আজম। সাংগঠনিক সম্পাদকের তিনটি পদ খালি রয়েছে। স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ড ও সংসদীয় বোর্ডের সদস্যদের নামও ঘোষণা করা হয়েছে।

সম্পাদকীয় পদে জায়গা পেলেন যারা- এর মধ্যে শাম্মী আহমেদকে আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক, অ্যাডভোকেট নজিবুল্লাহ হিরুকে আইন বিষয়ক সম্পাদক, ফরিদুন্নাহার লাইলীকে কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক, সুজিত রায় নন্দীকে ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক, বিপ্লব বড়ুয়াকে দপ্তর সম্পাদক, আবদুস সোবহান গোলাপকে প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক, দেলোয়ার হোসেনকে বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক, ইঞ্জিনিয়ার আবদুস সবুরকে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক, মেহের আফরোজ চুমকিকে মহিলা বিষয়ক সম্পাদক, মৃনাল কান্তি দাসকে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক, হারুনুর রশীদকে যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক, শামসুন্নাহার চাপাকে শিক্ষা ও মানব সম্পাদক বিষয়ক সম্পাদক, অসীম কুমার উকিলকে সংষ্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক এবং ডা. রোকেয়াকে স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক করা হয়েছে।

সংসদীয় বোর্ড- শেখ হাসিনা, সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী, আমির হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ, আবুল হাসনাত আবদুল্লাহ, শেখ ফজলুল করিম সেলিম, কাজী জাফর উল্লাহ, ওবায়দুল কাদের, মো. রাশিদুল আলম। বাকি নামগুলো পরবর্তীতে ঘোষণা করা হবে। এক্ষেত্রে বিভাগীয় দিকগুলো বিবেচনায় নিতে চান বলে জানিয়েছেন শেখ হাসিনা।

স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ড- শেখ হাসিনা, সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী, আমির হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ, শেখ ফজলুল করিম সেলিম, আবুল হাসনাত আব্দুল্লাহ, কাজী জাফর উল্লাহ, মোহাম্মদ নাসিম, ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক, লেফটেন‌্যান্ট কর্নেল (অব.) ফারুক খান, ওবায়দুল কাদের, মো. রাশিদুল আলম, মাহবুব-উল-আলম হানিফ, ডা. দীপু মনি, জাহাঙ্গীর কবির নানক, মো. আব্দুর রহমান, ড. আব্দুস সোবহান গোলাপ।

উপদেষ্টা পরিষদ- ৫১ সদস্যের উপদেষ্টা পরিষদে আছেন- ডা. এস এ মালেক, আবুল মাল আব্দুল মুহিত, আমির হোসেন আমু, তোফায়েল আহমেদ, অ্যাডভোকেট মো. রহমত আলী, এইচ টি ইমাম, ড. মশিউর রহমান, অধ‌্যাপক ড. আলাউদ্দিন আহমেদ, অ্যাডভোকেট ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন, ব্যারিস্টার শফিক আহমেদ, অ্যাডভোকেট সৈয়দ আবু নসর, শ্রী সতীশ চন্দ্র রায়, অধ‌্যাপক ড. আব্দুল খালেক, অধ‌্যাপক ডা. রুহুল হক, ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশাররফ হোসেন এমপি, কাজী আকরাম উদ্দীন, অ্যাডভোকেট সৈয়দ রেজাউর রহমান, ড. অনুপম সেন, অধ‌্যাপক ড. হামিদা বানু, অধ‌্যাপক ড. মো. হোসেন মনসুর, অধ্যাপক সুলতানা শফি, এ এফ এম ফখরুল ইসলাম মুন্সী, অ্যাম্বাসেডর মোহাম্মদ জমির, গোলাম মওলা নকশাবন্দি, ড. মির্জা এম এ জলিল, ড. প্রণব কুমার বড়ুয়া, মেজর জেনারেল (অব.) আব্দুল হাফিজ মল্লিক, অধ‌্যাপক ড. সাইদুর রহমান খান, ড. গওহর রিজভী, মো. রশিদুল আলম, স্থপতি ইয়াফেস ওসমান, কাজী সিরাজুল ইসলাম, আলহাজ মকবুল হোসেন, মোজাফফর হোসেন পল্টু, অ্যাডভোকেট আবদুল বাসেত মজুমদার, মুকুল বোস, সালমান এফ রহমান, ইনাম আহমেদ চৌধুরী, আতাউর রহমান, জয়নাল হাজারী। বাকি পদগুলো পরে আলোচনা করে পূরণ করা হবে বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ হাসিনা।

Check Also

দেশে এখন ভয়াবহ অবস্থা বিরাজমান: ডা. জাফরুল্লাহ

গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী বলেছেন, ‘দেশে এখন ভয়াবহ অবস্থা বিরাজমান। কভিড-১৯ …